রবিবার , জুন ২০ ২০২১
Home / জেলার খবর / মৃত নুর ইসলামের স্বজনদের মানববন্ধন

মৃত নুর ইসলামের স্বজনদের মানববন্ধন

সংবাদ চ‍্যানেল  কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি



কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার শ্রীপুর দক্ষিণ সঠিবাড়ী এলাকায় জমা-জমি নিয়ে দীর্ঘ দিনের বিবাদের জেড়ে গত ১০ জুন  প্রতিপক্ষ একই এলাকার মৃত আজিম উদ্দিন এর পুত্র শাহিনুর রহমানের কোদালের কোপে মৃত নুর ইসলামের স্বজন ও এলাকাবাসী ঘাতকের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন করেছে।

এ ঘটনায় মৃতের ভাই নাগেশ্বরী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। যার মামলা নং- ১১, তারিখ- ১০.০৬.২০খ্রি:। ধারা- ৪৪৭/৩২৩/৩২৬/৩০৭/৩০২/৫০৬/১১৪/৩৪। বর্তমানে শাহিনুর পলাতক রয়েছে।

আজ সকালে শ্রীপুর দক্ষিণ সঠিবাড়ী এলাকায় গ্রামের শত শত মানুষ মানববন্ধনে অংশ নিয়ে ঘাতক শাহিনুর সহ তার সঙ্গীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানান।

প্রসঙ্গত- কুড়িগ্রাম নাগেশ্বরী উপজেলার শ্রীপুর দক্ষিণ সঠিবাড়ী এলাকার মো: হোসেন আলীর পুত্র মো: আফজাল হোসেন গং এর পৈত্তিক সূত্রে প্রাপ্ত জমা-জমি নিয়ে একই এলাকার মৃত আজিম উদ্দিনের পুত্র শাহিনুর রহমান গং এর দন্ধ চলে আসছে।

এরই জেড়ে গত ১০ জুন শাহিনুর রহমান, আ: হাই ওরফে লিটন, পিতা- মো: শাহ আলম, মোছা: মমেনা বেওয়া, স্বামী মৃত আজিম উদ্দিন, মোছা: নাজমা বেগম, স্বামী শাহিনুর জোড় পূর্বক ঐ জমিতে বাঁশের খুটি দিতে যায়।

এ সময় আফজাল হোসেন, ভাই নুর ইসলাম, নুরুজ্জামান, ভাগিনা রবিউল ইসলাম জমিতে খুটি দিতে বাধা দিলে শাহিনুর গং পুর্ব পরিকল্পিতভাবে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তাদের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। এলোপাতারি ডাং-মার করে কোদাল দিয়ে নুর ইসলাম ও তার ভাইকে আঘাত করে।

তাদের আত্বচিৎকারে এগিয়ে আসা গ্রামবাসীদের সহযোগীতায় আহতদের চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে গুরুতর নুর ইসলামকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জ রওশন কবীর জানান, বর্তমানে আসামী পলাতক রয়েছে। আসামীকে ধরতে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

About songbadchannel

Check Also

কুড়িগ্রাম ধরলা ব্রিজের নিচ থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

শেখফরিদ সংবাদ চ্যানেল কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি : শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ কুড়িগ্রামে ধরলা ব্রীজের নিচ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.